আজকের সকল শিরোনাম
ফটোগ্যালারি
বুধবার, ঢাকা ॥ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ ॥ ২৮ মাঘ ১৪২২ ॥ ৩০ রবিউস সানি ১৪৩৭
সংবাদ শিরোনাম :
বসন্ত বরণে ফুল
Published : Wednesday, 10 February, 2016 at 12:00 AM
ধীরাজীব পাল রনী
বসন্ত বরণে ফুল উপহার হিসেবে ফুলের বিকল্প নেই। পহেলা ফাল্গুন ও ভালবাসা দিবসকে সামনে রেখে ফুলের দোকানগুলো সাজানো হচ্ছে নতুন আঙ্গিকে। ক্রেতার চাহিদার দিকে লক্ষ্য রেখে রজনীগন্ধা, গাঁদা, গোলাপ, লিলি, জিনিয়া, স্বর্ণঅশোক, চাঁপাবেলী, ক্যালেন্ডুলা, পিটুনিয়া, চন্দ্রমল্লিকা, পপি, জার্বেরা, অর্কিড, জিপসি, ক্যান্ডিসহ দেশি-বিদেশি বিভিন্ন রকম ফুল পাওয়া যাবে রাজধানীর ফুলের দোকানগুলোতে। ভালবাসা দিবসে মনের রঙে রাঙিয়ে তুলতে বিনোদনের জন্য বেড়িয়ে আসতে পারেন।
ফুলের দরদাম : রাজধানীতে একটু ঘুরলেই সারি সারি ফুলের দোকানে পাওয়া যাবে বিভিন্ন জাতের গোলাপ। লাল গোলাপ ভালবাসার প্রতীক। তাই লাল গোলাপের চাহিদা বেশি। প্রতি পিস গোলাপের দাম ৫ থেকে ১০ টাকা। একগুচ্ছ গোলাপ কিনতে চাইলে দাম পড়বে ৩০০ থেকে ৬০০ টাকা। গোলাপের তৈরি বিভিন্ন তোড়া আকারভেদে ১০০ থেকে ৪০০ টাকা। গোলাপের গহনার সেট পড়বে ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা। রজনীগন্ধা প্রতি পিস কিনতে চাইলে লাগবে ৩ থেকে ৮ টাকা। রজনীগন্ধার ১০০টির আঁটি কিনতে চাইলে লাগবে ২০০ থেকে ৩৫০ টাকা। রজনীগন্ধার গহনার সেট পড়বে ৩৫০ থেকে ৪৫০ টাকা। গাঁদা কিনতে খরচ পড়বে মালাপ্রতি ১০ টাকা আর ২০ পিসের একগোছা মালার দাম ১৫০ থেকে ২০০ টাকা। সাজে প্রাণবন্ত ভাব আনতে রমণীদের খোঁপার জন্য গাঁদার রিং তোড়া পাওয়া যায়। তার দাম পড়বে ১২০ থেকে ২০০ টাকা। গাঁদা ফুলের গহনার সেট পাওয়া যাবে ২০০ থেকে ২৫০ টাকা। অর্কিড প্রতি পিস ২০ থেকে ২৫ টাকা।  অর্কিডের ১ আঁটির দাম পড়বে ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা। গাজরা এক ছড়া ২০ থেকে ২৫ টাকা পাওয়া যাবে। এছাড়া গাজরার মালা কিনতে পাওয়া যায়। গাজরার মালা কিনতে লাগবে ৩০ থেকে ৪০ টাকা। গ্লাডিওলাস নানা রঙের হয়ে থাকে। যে কোনো রঙের গ্লাডিওলাস প্রতি পিস ৮ থেকে ১২ টাকা। জিপসি আর গোলাপ দিয়ে বানানো ফুলের তোড়া কিনতে পারবেন ৬০ থেকে ৮০ টাকার মধ্যে। বিভিন্ন সাইজের সূর্যমুখীর দাম পড়বে ৪০ থেকে ৬০ টাকা। জুঁই-বেলি ফুলের দাম পড়বে ৪ থেকে ৫ টাকা। বেলি ফুলের মালার দাম পড়বে ১৫ থেকে ২৫ টাকা।  চন্দ্রমল্লিকা প্রতি পিস ফুলের দাম ১০ থেকে ১৫ টাকা। চায়না লিলির দাম পড়বে ৭০ থেকে ১০০ টাকা। নানা বাহারির ফুল দিয়ে তোড়ার দাম পড়বে ৩০০ থেকে ৮০০ টাকা। পহেলা ফাল্গুনে ও বিশ্ব ভালবাসা দিবসে আপনার প্রিয়জনকে উপহার দিতে পারেন এসব ফুল।
কোথায় পাবেন : ফুল কেনার জন্য আসতে পারেন রাজধানীর সবচেয়ে বড় ফুলের বাজার শাহবাগে। এখানে সাভার, নারায়ণগঞ্জ ও যশোর থেকে সরাসরি ফুল নিয়ে আসে পাইকাররা। সব ধরনের পাইকারি ও খুচরা ফুল কিনতে পারবেন শাহবাগে। পাইকারি কিনতে চাইলে খুব ভোরে আসতে হবে এখানে। শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের বিপরীত দিকে রয়েছে ফুলের দোকান। তার মধ্যে অন্যতম অহনা ফুল কুঠির, ফাতেমা পুষ্পালয়, শাওন পুষ্পালয়, করবী পুষ্পালয়, সুবর্ণা পুষ্প বিতান, গ্রামীণ পুষ্পালয়, জেরিন ফ্লাওয়ারস, শাহজালাল পুষ্পকেন্দ্র, নিউ করবী পুষ্পালয় এছাড়া পুরান ঢাকার লক্ষ্মীবাজার, পান্থপথ, নীলক্ষেত, কাঁটাবন, খিলগাঁও, বেইলি রোড, মোহাম্মদপুর, বিজয় সরণি আসাদগেট, কলাবাগান, নিউমার্কেট, শান্তিনগরসহ রাজধানীর বিভিন্ন দোকানে পাওয়া যাবে এসব ফুল।



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত